জাতীয় সংসদের ডেপুুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া’র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের শোক

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২২ জুলাই ২০২২ মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মুত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন বঙ্গবন্ধুৃ শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ গিয়াসউদ্দীন মিয়া। প্রয়াত এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া ১৯৪৬ সালে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বটিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫৮ সালে পাকিস্তানের সামরিক শাসক আইয়ুব খান মার্শাল ল জারি করলে তার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। তিনি ১৯৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে ১১ নম্বর সেক্টরের যোদ্ধা হিসেবে অংশ গ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮৬, ১৯৮৮, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ ও সর্বশেষে ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধা-৫ আসন থেকে মোট ৭ বার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ২০১৪ সালের ১০ম সংসদ থেকে মুত্যুর পূর্ব পর্যন্ত মহান জাতীয় সংসদে ডেপুটি স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ইতিপূর্বে বাংলাদেশ সরকারের আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় সংসদের হুইপ, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। জনাব ফজলে রাব্বী মিয়া’র মৃত্যৃতে বশেমুরকৃবি পরিবার গভীরভাবে শোকাহত। এক শোকবার্তায় উপাচার্য বলেন, তাঁর মৃত্যুতে দেশ একজন প্রখ্যাত আইনজীবী, বিশিষ্ট পার্লামেন্টারিয়ান ও একজন বরেণ্য রাজনীতিবিদকে হারালো। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা সংগ্রাম ও সংসদীয় গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় তাঁর অসামান্য অবদানের কথা জাতি চিরদিন কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবে। তিনি ডেপুটি স্পিকারের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।